Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    টার্গেট করেই ছুরিকাঘাত করে ছিনতাই করে তারা।


    দিগন্ত ডেস্কঃ বগারবিল ও দেওয়ানবাজার এলাকায় বসবাস করে রাকিব, নিপা ও রাশেদ। নিপা গৃহকর্মী হিসেবে একজনের বাসায় কাজ করে।

    রাকিব, নিপা ও রাশেদ একই এলাকায় বড় হওয়ার সুবাদে পরিচিত। তারা প্রেমিক প্রেমিকা পরিচয় দিয়ে নগর এলাকায় বেড়ানোর কথা বলে সিএনজি টেক্সি ভাড়া নেয়।

    রাশেদ সবসময় টেক্সি ড্রাইভারের পাশে বসে থাকে। রাশেদ এমনভাবে সামনে বসে যাতে ড্রাইভার মনে করে যে, পিছনে বসা দুজনই প্রেমিক প্রেমিকা এবং সামনে আছেন বন্ধু।

    ঘুরতে ঘুরতে ছিনতাই করার জন্য কোথাও দাঁড়িয়ে অবস্থান করার সময় ছেলে এবং মেয়ে গল্প করার ভান করে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থেকে মোবাইল হাতে থাকা একাকী পথচারীকে টার্গেট করে। পরে সুযোগ বুঝে ছুরিকাঘাত করে ছিনিয়ে নেয় মোবাইল ও মূল্যবান জিনিসপত্র।

    বুধবার (১৮ নভেম্বর) এমন ছিনতাইকারী চক্রের কয়েকজনকে গ্রেফতারের পর কোতোয়ালী থানায় ব্রিফিংয়ে সিএমপির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) পলাশ কান্তি নাথ এসব তথ্য জানান।

    গ্রেফতার ছিনতাইকারী রাকিবুল হাসান প্রকাশ রাকিব (২৫), রূপালী প্রকাশ রূপা প্রকাশ নিপা (২০), মো. আলাউদ্দিন (৫০) ছাড়াও পৃথক একটি ছিনতাইকারী গ্রুপের আরও পাঁচ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা হলো- মো. রুবেল (২৮), ফারজানা বেগম (২৬), মো. রাজু প্রকাশ সুমন (২৩), মো. আলামিন (২৮) ও আব্দুল নাইম (২০)।  

    নগরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এসব ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করে কোতোয়ালী থানার পৃথক টিম।

    সিএমপির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) পলাশ কান্তি নাথ ব্রিফিংয়ে জানান, নিপা গৃহকর্মী হলেও মূলত ছিনতাইকারী। একেক সময় একেকজন সহযোগী নিয়ে সন্ধ্যার পর ছিনতাই করে। নিপা যে বাসায় কাজ করে সে বাসা থেকে সন্ধ্যার আগে বিভিন্ন অজুহাতে বের হয়ে তার অন্যান্য সহযোগীদের নিয়ে ছিনতাই করে পুনরায় বাসায় চলে যায়।  

    ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন সিএমপির সহকারী কমিশনার (কোতোয়ালী জোন) নোবেল চাকমা, কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন।


    প্রকাশিত: বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad