Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    হাসপাতালে স্ত্রী'র লাশ রেখে স্বামী ও শাশুড়ির পালায়ন!




    মোহাম্মদ তাজুল ইসলামঃ আগাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্ত্রী'র লাশ রেখে তার স্বামী ও শাশুড়ি পালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহতের নাম বিথী আক্তার দিনা। 
    পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

    নিহত বিথী আক্তার দিনা (১৯) ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সদর থানার ভেদুঘর এলাকার আমির হোসেনের মেয়ে এবং ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থানার ভিন্নারিয়া গ্রামের জামাল সিকদারের ছেলে ইয়াসিন সিকদারে স্ত্রী।

    স্থানীয়রা জানান, প্রেমের সম্পর্কের জেরে প্রায় ৬ মাস আগে গাজীপুরে এসে ইয়াসিন সিকদারকে বিয়ে করেন বিথী। বিয়ের পর স্ত্রী ও পরিবারের সদস্যদের নিয়ে গাজীপুর সদর নলজানী এলাকার গ্রেট ওয়াল সিটিতে বেলায়েতের বাসায় ভাড়া থাকতেন ইয়াসিন। 

    পারিবারিক বিষয়াদি নিয়ে গত কিছুদিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া বিবাদ চলে আসছিল। 
    শুক্রবার রাতে ইয়াসিন বাসায় ফিরে বিথীকে ঘরের বিছানার ওপর অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। এ সময় তার মুখ দিয়ে ফেনা বের হচ্ছিল। রাতে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। 
    পরদিন শনিবার (১০ অক্টোবর)সকালে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য স্বামী ও শাশুড়ি তাকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান।

    সেখানে চিকিৎসক বিথীকে মৃত ঘোষণা করলে তার লাশ হাসপাতালে ফেলে তার স্বামী ইয়াসিন ও শাশুড়ি বৃষ্টি বেগম পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ দুপুরে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

    উপপরিদর্শক মাসুম হাসান জানান, দাম্পত্য কলহের জেরে স্বামীর সাথে অভিমান করে শুক্রবার সন্ধ্যার পর বিথী বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। নিহতের মুখে ফেনা ও বিষের গন্ধ রয়েছে। তবে ময়না তদন্তের পর এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যাবে।


    প্রকাশিত শনিবার ১০ অক্টোবর

    Post Top Ad