Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    শিশু ওমর ফারুক বাঁচতে চায়

    ইমদাদুল হক, পাইকগাছাঃ- ছোট্ট শিশু ওমর ফারুক এখনো কথা বলতে শিখেনি, হামাগুড়ি ও একটু একটু দাঁড়াতে শিখেছে। বয়স প্রায় ১১ মাস, সে হৃদরোগে আক্রান্ত। হার্ড ছিদ্র ও রক্তের শিরা বন্ধ নিয়ে জন্ম গ্রহন করেছে সে। ছোট্ট শিশু ওমর ফারুক পৃথিবী সম্পর্কে কিছুই বুঝতে শেখেনি। তার আগেই তাকে মৃত্যু হাতছানি দিচ্ছে। বাঁচতে চায় শিশু ওমর ফারুক।
     
    জানা গেছে, পাইকগাছা উপজেলার ৭নং গদাইপুর ইউনিয়নের চরমলই গ্রামের মোঃ হায়দার মোড়লের পুত্র ওমর ফারুক, বয়স প্রায় ১১ মাস। জন্মের পর থেকে প্রায় সময় সে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। ডাক্তার দেখানোর পরও রোগ ধরা পড়েনি। সে সুস্থ্য না হওয়ায় ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ঢাকার জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

    হাসপাতালের কনসালট্যান্ট ডাঃ মোহাম্মদ মাসুদ আলম বিভিন্ন টেষ্ট করার পর তার হার্ডের ছিদ্র ও রক্তের শিরার ব্লক ধরা পড়ে। তার চিকিৎসার প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা খরচ হবে। কিন্ত দরিদ্র পিতা মোঃ হায়দার মোড়লের পক্ষে এতো টাকা সংগ্রহ করা অসম্ভব হয়ে দাড়িয়েছে। তাই হার্ডের ছিদ্র নিয়ে জন্ম নেওয়া শিশু ওমর ফারুককে বাঁচানোর জন্য সমাজের স্বহৃদয় ও বিত্তবানদের নিকট আর্থিক সহযোগীতা কামনা করেছেন পিতা  হায়দার মোড়ল।

    একটু সহযোগীতা পেলে ছোট শিশু ওমর ফারুককে বাঁচানোর সম্ভব হবে। এ জন্য স্বহৃদয় ও বিত্তবানদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। সহযোগীতা পাঠানোর বিকাশ নম্বর ০১৭১৭-৪১৭৬৪১

    প্রকাশিত: রবিবার, ০৪ অক্টোবর, ২০২০

    Post Top Ad