Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    সীতাকুণ্ডে গামছা পেঁচিয়ে কিশোরের আত্নহত্যা


    সীতাকুণ্ড প্রতিনিধিঃ  চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে এক কিশোর পুকুর ঘাটে গোসল করতে গিয়ে ঘাটের উপর ছাউনির সিলিং এর সাথে গামছা পেঁচিয়ে আত্নহত্যা করেছে।

    নিহতের বড় ভাই কবির হোসেন (২১) থেকে মুঠোফোনে জানা যায়, গত মঙ্গলবার রাত ১০টায় পৌরসভাস্হ হোটেল কিছুক্ষণের বয় মোঃ বেলাল হোসেন (১৮) কাজ শেষ করে বাসায় আসে।

    এরপর সে ফোনে মা বাবার সাথে জোড়ে জোড়ে কথা শেষ করে বড় ভাই কবিরকে বলে সে গোসল করতে যাচ্ছে। এক ঘন্টার পরও সে বাসায় না আসায় কবির খুঁজতে বের হলে এক লোক তাকে বলে (সাড়ে ১০টা) ঘাটলায় তার ভাই বেলাল ফাঁসি খেয়ে ঝুলে আছে।শুনে দৌড়ে কাছে গিয়ে দেখে তার ভাই ঘাটলার ছাউনির সিলিং এর সাথে গামছা পেঁচিয়ে ফাঁসি খেয়ে মারা গেছে।

    নিহত বেলাল ও কবির বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সের ৩য় তলায় ভাড়া থাকতো।গত ৩ মাস ধরে নিহত বেলাল পৌরসভাস্হ উত্তর বাইপাশ টেকনো সিএনজি পেট্রোল পাম্পের পূর্ব পাশে হোটেল কিছুক্ষণে বয়ের চাকরি করতো।

    খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঝুলন্ত লাশটি নামিয়ে থানায় নিয়ে আসেন। তার গ্রামের বাড়ি লক্ষীপুর জেলার চান্দগঞ্জ থানার কল্যাণপুর গ্রামের মোসলেহ উদ্দীনের ছেলে। 
    এদিকে হোটেলের মালিক আবু তাহের ও দোকানের অন্যান্য কর্মচারীরা বলেন, বেলালের মা বাবা প্রায় সময় তাকে টাকার জন্য চাপ সৃষ্টি করতো বিধায় সে মানসিক টেনশনে থাকতো।সে খুব শান্তশিষ্ট ছেলে ছিল এবং সে আমার হোটেলে কাজ শেষ করে ভাত খেয়ে বাসায় যায়।ঘটনাটি শুনে আমি সাথে সাথে ঘটনাস্থলে ছুটে যাই।

    এব্যাপারে মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফিরোজ হোসেন মোল্লা জানান, আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি নিয়ে আসি।আত্নহত্যা কারণ জানতে  তদন্তের চলছে।

    প্রকাশিত: বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০

    Post Top Ad