Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    পাইকগাছায় স্বামী ও পুত্র মিলে ছোট স্ত্রীকে মারপিট করে রক্তাক্ত জখমের অভিযোগ

    ইমদাদুল হক, পাইকগাছাঃ- পাইকগাছায় স্বামী ও বড় স্ত্রীর পুত্র মিলে ছোট স্ত্রীকে বেধড়ক মারপিট করে রক্তাক্ত জখম করাছে। এলাকা বাসী আহতকে পাইকগাছা হাসপাতালে ভর্তি করেছে। ঘটনাটি উপজেলার সোলাদানা ইউনিয়নে (হাজতের ভিটা) নামক স্থানে। এ ঘটনায় জখমী মর্জিনা বাদী হয়ে পাইকগাছা থানায় এজাহার দায়ের করেছে।

     জানা যায়, শুক্রবার সকালে উপজেলার সোলাদানা ইউপির চৌরাস্তা (হাজতের ভিটা) নামক গ্রামের মৃত মাহমুদ আলী গাজীর পুত্র নজরুল ইসলাম স্ত্রী ও সন্তান গোপন করে সাতক্ষীরা জেলার তালা থানার মুড়াকলিয়া গ্রামের মোহাম্মদ আলী সরদারের কন্যা মর্জিনা খাতুনকে ২০০৭ সালের ৪ ফেব্রয়ারী বিবাহ করে। বিবাহের পর থেকে মর্জিনা ও নজরুল চৌরাস্তার বাড়ীতে বসবাস করতে থাকে।

    এদিকে নজরুলের বড় স্ত্রী ও সন্তান মিজানুর রহমান ঢাকাতে অবস্থান করত। মর্জিনার স্বামী নজরুল প্যারালাইজড হয়ে একটি হাত অচল হয়ে পড়লে সংসার পরিচালনা করা কষ্টকর হয়ে পড়ে। তখন মর্জিনা রাস্তার পাশে চায়ের দোকান করে অতি কষ্টে সংসার নির্বাহ করে। সম্প্রতি নজরুলের পুত্র মিজান ও তার স্ত্রী শাপলা ঢাকা হতে বাড়ীতে ফিরে আসে।

    তারা মর্জিনার তৈরী করা দোকান ঘরটি মিজানকে দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করতে থাকে। মর্জিনা দোকান ঘর দিতে অস্বীকার করলে শুক্রবার সকালে নজরুল, পুত্র মিজান ও নজরুলের ছোট ভাই শহিদুল শত শত লোকের উপস্থিতিতে মর্জিনাকে দোকান হতে বের করে বেধড়ক মারপিট করে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে।

    স্থানীয় লোকজন মর্জিনাকে গুরুতর আহত অবস্থায় পাইকগাছা হাসপাতালে ভর্তি করে। মর্জিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় মর্জিনা বাদী হয়ে ৩জনের নামে পাইকগাছা থানায় এজাহার দাখিল করেছে। ওসি এজাজ শফী জানান, উক্ত ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

    প্রকাশিত: রবিবার, ০৪ অক্টোবর, ২০২০

    Post Top Ad