Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    দশম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের পর বীরদর্পে ঘুরে বেড়াচ্ছেন সুমন রেজা.

    কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের পর বীরদর্পে ঘুরে বেড়াচ্ছেন আসামি সুমন রেজা। মামলা দায়েরের ১৩ দিন পার হলেও পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

    ওই ছাত্রীর দিনমজুর পিতা পুলিশসহ প্রভাবশালীদের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোনো ফল পাননি।

    তবে, পুলিশ বলছে সুমন রেজাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

    জানা গেছে, দৌলতপুর উপজেলার হোগলবাড়ীয়া ইউনিয়নের জয়রামপুর গ্রামের দশম শ্রেণি পড়ুয়া এক ছাত্রীর (১৬) সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে একই এলাকার সুমন রেজা। তিনি ওই গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে।

    গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাতে বাড়ির সবাই ঘুমিয়ে পড়লে সুমন রেজা ফোন করে ওই ছাত্রীকে বাড়ির বাইরে আসতে বলে। প্রেমিকের কথায় মেয়েটি বাড়ির পেছনে গেলে সুমন রেজা তাকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।

    মেয়েটি প্রথমে বিষয়টি গোপন রাখলেও ২৯ সেপ্টেম্বর তার মাকে জানায়। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা গত ৩০ সেপ্টেম্বর দৌলতপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে সুমন রেজার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলার পর ১৩ দিন চলে গেলেও পুলিশ আসামি সুমন রেজাকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

    মেয়েটির বাবা অভিযোগ করে বলেন, ‘সুমন এলাকায় প্রকাশ্যেই ঘুরে বেড়াচ্ছে। কিন্তু পুলিশ তাকে ধরছে না। তিনি একজন দরিদ্র মানুষ, অন্যের ক্ষেতে দিন-মজুরের কাজ করেন।’

    এ কারণে পুলিশ তার কথা আমলে নিচ্ছে না বলে জানান ছাত্রীর বাবা। তার অভিযোগ এলাকার একটি প্রভাবশালী মহল সুমনের পক্ষে কাজ করছে। এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চান তিনি।

    দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  ওসি জহুরুল আলমের দাবি মামলা হওয়ার পর থেকে সুমন এলাকা ছাড়া। তাকে গ্রেফতারে একাধিক অভিযান চালানো হয়েছে। তবে তাকে এখনও গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। শিগগিরই সে ধরা পড়বে বলে আশ্বাস দেন ওসি।

    প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০

    Post Top Ad