Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    নোয়াখালীতে সুদের টাকার জন্য ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ, লাশ নিয়ে বিক্ষোভ

    মোঃ ইব্রাহিম, নোয়াখালীঃ- নোয়াখালী সদর উপজেলার কালাদরাপ ইউনিয়নের নুরুপাটোয়ারীর হাটে সুদের টাকার জন্য ব্যবসায়ী মো. সোহেলকে (২৮) পিটিয়ে ও বিষপানে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় হত্যাকারীদের দূত গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে লাশ সামনে নিয়ে বিক্ষোভ করেছে সহস্রাধিক গ্রামবাসী। এদিকে ঘটনার পরপরই মো. ফারুক হোসেন (৩৩) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার পশ্চিম শুল্লুকিয়া গ্রামে নিহত সোহেলের লাশ নিয়ে এ বিক্ষোভ করে গ্রামবাসী। এরআগে সোমবার দুপুরে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোহেলের মৃত্যু হয়।

    নিহত সোহেল উপজেলার পশ্চিম শুল্লুকিয়া গ্রামের মো. আবুল কালামের ছেলে এবং নুরুপাটোয়ারীর হাটের মুদি ব্যবসায়ী।

    নিহতের পিতা আবুল কালাম ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, নুরুপাটোয়ারীর হাটের সুদের কারবারি নুর মোহাম্মদ দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকায় চড়া সুদে টাকা লেনদেনের ব্যবসা করে আসছে। গত রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে নুর মোহাম্মদ মুদি ব্যবসায়ী সোহেলের দোকানে গিয়ে তার বাবাকে জানায় সোহেলের নিকট সুদের ব্যবসা বাবদ তিনি ৬/৭ লাখ টাকা পাবেন। পরের দিন সোমবার সকালে সোহেলের বাবা স্থানীয় লোকজনের উপস্থিতিতে নুর মোহাম্মদকে সুদের টাকা লেনদেনের বিষয়টি সমাধানের সিদ্ধান্ত দেন।

    ওই দিন সকাল ৯টার দিকে নুর মোহাম্মদের ছেলে মো. ফারুক ও মোহাম্মদ রুবেলসহ অজ্ঞাত এক যুবক ব্যবসায়ী সোহেলকে নিজ বাড়ির সামনে থেকে মোটরসাইকেল যোগে তুলে নিয়ে সোহেলের মুদি দোকানের পিছনে রেখে শারীরিক নির্যাতনের পর বিষ খাইয়ে দেয়। ঘটনার পর খবর পেয়ে বাবা আবুল কালামসহ স্থানীয়রা সোহেলকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করলে দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।সুধারাম মডেল থানার ওসি (তদন্ত) ট্রমাস বড়ুয়া জানান, এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার পরপরই পুলিশ মামলার ১নং আসামী মো. ফারুক হোসেনকে গ্রেফতার করেছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

    প্রকাশিত: বুধবার ৫, অগাস্ট ২০২০

    Post Top Ad