Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    কুয়াকাটায় কৃষকদের মানববন্ধন এবং গনমাধ্যমে প্রকাশের পর খালের বাধঁ পরিদর্শণ করলো ভূমি প্রশাসন


    রাসেল কবির মুরাদ, কলাপাড়া-পটুয়াখালীঃ-  কুয়াকাটায় প্রবাহমান খালে বাঁধ দিয়ে অবৈধভাবে মাছ চাষের প্রতিবাদে কৃষকদের মানবন্ধনের পর কলাপাড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কচ্ছপখালী খালটি পরিদর্শণ করেছেন। বুধবার দুপুরের দিকে ওই কর্মকর্তা সরেজমিন পরিদর্শণে গেলে খালে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষের সত্যতা পায়।

    এসময় তিনি ভুক্তভোগী একাধিক কৃষকের মৌখিক অভিযোগ শুনেছেন এবং প্রবাহমান খালে ভূমিহীন নামে বন্ধোবস্ত দেওয়ার প্রমানও সংগ্রহ করেছেন । ক্ষতিগ্রস্থ ৫ গ্রামের কৃষকরা জানিয়েছেন, ১৩ কি: মি: কচ্ছপখালী খালে ১৫ টি বাঁধ দিয়ে প্রভাবশালী মহল মাছ চাষ করছে যা বাঁধ চলমান থাকলে কচ্ছপখালী, নবীনপুর,তুলাতলী,মুসুল্লীয়াবাদও আজিমপুর গ্রামের পরিবারগুলো স্থায়ী জলাবদ্ধতার কবলে পড়বে।

    খাল পুনরুদ্ধার কমিটির সভাপতি শাহজাহান মৃধাসহ ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাবাসী বাঁধ অপসারণ করে পানি নিষ্কাসন ব্যবস্থা সচল  রাখাসহ কচ্ছপখালী খালে ভূমিহীন বন্ধোবস্ত বাতিলের দাবী তোলেন।

    কৃষকদের দাবীর প্রতিশ্রুতিতে কলাপাড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জগৎবন্ধু মন্ডল বলেন, অচিরেই বাঁধ অপসারণ করা হবে। আইনী প্রক্রিয়া শেষে ভূমিহীন বন্ধোবস্ত বাতিলের ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি এবং পরিদর্শণকালে পানি নিষ্কাশনের জন্য স্লুইজগেট ব্যবস্থা না রেখে কচ্ছপখালী খালের ওপর কুয়াকাটা পৌর কর্তৃপক্ষ সড়ক নির্মাণ করায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন।

    ঊল্লেখ্য কুয়াকাটা পৌর শহরের ‘কচ্ছপখালী খালে বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করছে একটি প্রভাবশালী মহল। খালটি পুনরুদ্ধার করে পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা সচল রাখার দাবীতে মঙ্গলবার মানববন্ধন করেছেন ভুক্তভোগী শতাশত কৃষক।

    প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই, ২০২০

    Post Top Ad

    সজীব হোমিও প্যাথিক হল