Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    খাল খননের নামে বোয়ালখালীতে কৃষিজমি ধ্বংস বন্ধের আহ্বান


    মিজানুর রহমান, বোয়ালখালীঃ-বোয়ালখালী উপজেলার আহলা কড়লডেঙ্গা ও সারোয়াতলী ইউনিয়নের মধ্যস্থলে প্রবাহিত কুমারখালী খাল পুনঃখননের মাধ্যমে কৃষিজমি ধ্বংস বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে ভুক্তভোগী কৃষক ও সচেতন এলাকাবাসী। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, না জানিয়ে তাদের কৃষিজমি ধ্বংস করা হচ্ছে। আজ বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) বিকেল ৫ টায় আহলা কড়লডেঙ্গার দাশের দিঘীর পাড়ে একটি মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে এই দাবি জানায় তারা।

    উক্ত মানববন্ধনের আহ্বায়ক মোহাম্মদ মিয়া চৌধুরী বলেন - "কুমারখালী খাল পুনঃখননের মাধ্যমে মূলত খালের পার্শ্বস্থ কৃষিজমি ও পরিবেশ ধ্বংসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই খাল এমনিতেই গভীর পুনঃখননের ফলে খালের দু পাশের কৃষিজমি খালে বিলীন হবে এবং বর্ষাকালে প্রচুর পলি সৃস্টি হবে, যা স্রোতের সাথে কর্ণফুলি নদীতে গিয়ে কর্ণফুলির নাব্যতা হ্রাস করবে ও বন্দর চ্যানেলে পলির স্তুপ বেড়ে জাহাজ চলাচলেও ব্যাঘাত ঘটাবে।"

    মানববন্ধনের আরেক সদস্য আমির হোসেন মাস্টার বলেন - "কুমারখালী খাল পুনঃখননের নামে গাছপালা নিধন ও ভূমি গ্রাস হচ্ছে, কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না।" তিনি আরো বলেন - "জলাবদ্ধতার জন্য খাল দায়ী নয়, অপরিকল্পিত বাসস্থান, দোকান-পাঠ নির্মাণ, যত্র-তত্র মাটি ভরাট দায়ী, এগুলি সংস্কার করা গেলে সুফল পাওয়া যেত। খালপাড় ঠিক থাকার জন্য দরকার অধিক সংখ্যক গাছ, অথচ একটি স্বার্থান্বেষী মহল কুমারখালী খাল খননের নামে খাল পাড়ের সমস্ত গাছ দুমড়ে মুচড়ে উপড়ে ফেলছে। এতে কৃষিজমি ও পরিবেশ দুটাই হুমকির মুখে পড়ছে।"

    এ বিষয়ে জানতে চাইলে বোয়ালখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আছিয়া খাতুন বলেন- "আমি অভিযোগ পেয়েছি। অনেকে খালের পাড়ে কৃষি চাষ করে থাকে, জায়গা গুলো আদৌ তাদের কিনা তা খতিয়ে দেখতে হবে। দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।"

    প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ০২ জুলাই, ২০২০

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad