Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    নওগাঁয় বখাটে ছেলেদের বর্বরতায় স্কুল ছাত্রী সাদিয়া মৃত্যু শয্যায়

    আবু সাঈদ চৌধুরী, রাণীনগর(নওগাঁ)প্রতিনিধিঃ-  নওগাঁর রাণীনগরে বখাটে ছেলেদের বর্বরতা বিয়ের প্রলোভনে ব্ল্যাক মেইল করে ডেকে নিয়ে সেভেন আপের সাথে হারপিক মিশিয়ে জোর করে খাওয়ানোর ঘটনায় দীর্ঘদিন চিকিৎসার পরেও  এখন মৃত্যু শয্যায় রাণীনগর সরকারী মডেল পাইলট উচ্চ দ্যিালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী সাবিনা আক্তার সাদিয়া।

    এ ঘটনায় গত ৩০/০৫/২০২০ তারিখ মামলা করতে গেলে থানা মামলা না নেওয়ায় এবং আদালত বন্ধ থাকায় প্রায় দুই মাস পরে বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল -১ নওগাঁ আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

    মামলা ও পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, রাণীনগর উপজেলার খট্টেশ^র গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে শিবলু (২০) এর সাথে আদমদীঘি উপজেলার চকজান গ্রামের সাইফুল ইসলামের মেয়ে রাণীনগর সরকারী মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শেণির ছাত্রী সাবিনা আক্তার সাদিয়ার সাথে গত দুই মাস আগে উভয় পরিবারের সন্মতি ক্রমে তাদের মধ্যে বিয়ের কথা হয় এবং তিন মাস পরে ১নং আসামী শিবলুর বাড়িঘর নির্মানের পর বিবাহের কথা ছিল বলে জানা গেছে।


    কিন্তু তার আগেই শিবলু অন্যত্র বিয়ে করে গত ২২/ ০৫/২০২০ ইং তারিখ অনুমান সকাল ১০ টার সময় স্কুল ছাত্রী সাবিনা আক্তার সাদিয়াকে ব্ল্যাক মেইল করে ইন্টারনেটে ছবি ছাড়ার ভয় দেখিয়ে তাকে রাণীনগর পোষ্ট আফিসের সামনে ডেকে নিয়ে শিবলুর ঘনিষ্ট বন্ধু ২নং আসামী একই গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে নাহিদ (২০) ও আরও অজ্ঞাত ব্যাক্তিদের সহযোগিতায় স্কুল ছাত্রী সাদিয়াকে টমটমে উঠাতে চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়ে সেভেন আপের ৫০০ গ্রামের বোতলে হারপিক মিশিয়ে স্কুল ছাত্রী সাদিয়াকে জোর করে খাওয়ানোর পরে সাদিয়া ছটপট করতে থাকলে আহত অবস্থায় তাকে ফেলে রেখে তারা পালিয়ে যায়।

    এক পর্যায়ে ঘটনাস্থল থেকে ভিকটিমকে উদ্ধার করে প্রথমিক ভাবে রাণীনগর হাসপাতালে ওয়াস করে পরে নওগাঁ সদরে কয়েকদিন চিকিৎসা করে বগুড়া শহিদ জিয়া মেডিক্যালে স্থানান্তর করেন। বর্তমানে সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে । সাদিয়ার বাবা সাইফুল ইসলাম জানান, চিকিৎসকরা বলেছেন সাদিয়ার শ্বাস নালিতে ক্ষত হয়েছে সারতে অনেক সময় লাগবে। সাদিয়ার বাবা আরও বলেন ,গত দুই মাস ধরে আমার মেয়ে মুখে কিছু ক্ষেতে পারছেনা।

    এ ঘটনায় গত ৩০/০৫/২০২০ তারিখ মামলা করতে গেলে থানা মামলা না নেওয়ায় এবং আদালত বন্ধ থাকায় প্রায় দুই মাস পরে বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল -১ নওগাঁ আদালতে ভিকটিমের বড় চাচা মাসুদ মল্লিক বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

    প্রকাশিত: শনিবার ২৫, জুলাই ২০২০

    Post Top Ad