Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    বাগমারায় অবৈধ দখলমুক্ত, কোটি টাকার পুকুর উদ্ধার করল প্রশাসন

    বাগমারায় অবৈধ দখলমুক্ত, কোটি টাকার পুকুর উদ্ধার করল প্রশাসন

    মুকুল হোসেন, (বাগমারা) রাজশাহী: বাগমারায় কোটি টাকার সরকারী পুকুর অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে উদ্ধার করল উপজেলা প্রশাসন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরিফ আহম্মেদের নির্দেশে সোমবার বিকেলে সহকারী কমিশনার (ভুমি) মাহামুদুল হাসান আইন শৃংলা বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে উপজেলার যোগীপাড়া ইউনিয়নের কাতিলা গ্রামের অবৈধ দখলদার সিদ্দিক বাগের কাছ থেকে সরকারী কোটি টাকার পুকুরটি উদ্ধার করে নিজেদের দখলে নেয়।

    উপজেলা ভুমি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার যোগীপাড়া ইউনিয়নের কাতিলা গ্রামের সরকারী কোটি টাকার পুকুর একই গ্রামের প্রভাবশালী সিদ্দিক বাগসহ কয়েকজনে মসজিদ ও মাদ্রাসার নাম ভাঙ্গিয়ে প্রায় ৪০ বছর যাবৎ ভোগ দখল করে আসছে। পুকুরটি থেকে সরকার লক্ষ লক্ষ টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। উপজেলা জলমহল কমিটির পক্ষ থেকে কয়েকবার পুকুরটি লীজ দেয়া হয়। সিদ্দিক বাগ লীজ গ্রহিতাদের পুকুরটি দখল না দিয়ে তিনি গায়ের জোরে তার লোকজন নিয়ে জোরপূর্বক ভোগদখল করে আসছিলো। 

    চলতি বছরে উপজেলা জলমহল কমিটি পুকুরটি টেন্ডারের মাধ্যমে হাটগাঙ্গোপাড়া মৎস্যজীবি সমবায় সমিতিকে লীজ দেয়। পুকুরটি লীজ পাওয়ার পর হাটগাঙ্গোপাড়া মৎস্যজীবি সমবায় সমিতি পুকুরটি দখলে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাদেরকে সেখান থেকে তাড়িয়ে দেয়া হয়। এমন ঘটনায় প্রভাবশালী সিদ্দিক পুকুরটি নিজের কব্জায় রাখতে আদালতে মামলা দায়ের করে। 


    বিষয়টি জানতে পেরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকারী সম্পদ উদ্ধারের জন্য সহকারী কমিশনার (ভুমি)কে নির্দেশ দেন। সরকারী কমিশনার (ভুমি) মাহামুদুল হাসান কাগজপত্র যাচাই-বাচাই শেষে সোমবার বিকেলে আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে সরকারী পুকুরটি দখলে নেয় এবং হাটগাঙ্গোপাড়া মৎস্যজীবি সমবায় সমিতিকে বুঝিয়ে দেয়।

    সহকারী কমিশনার (ভুমি) মাহামুদুল হাসান বলেন, সিদ্দিক বাগ সরকারী সম্পত্তি নিজের কব্জায় রাখার জন্য মসজিদ ও মাদ্রাসার নাম ভাঙ্গিয়ে তিনি নিজেই ভোগদখল করে থাকেন। সরকারী সম্পত্তি রক্ষবেক্ষন ও সরকারী স্বার্থ সিংশ্লিষ্ট থাকায় পুকুরটি সিদ্দিক বাগের কব্জায় থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

     ওই পুকুরে সিদ্দিক বাগসহ যে কোন প্রভাবশালী দখলে যাওয়ার চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে সরকারী সম্পত্তি জোর পূর্বক জবর দখল ও সরকারী কাজে বাঁধা দেয়ার অভিযোগে মামলাসহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

    এ ব্যাপারে উপজেলা জলমহল কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরিফ আহম্মেদ বলেন, সরকারী সম্পত্তি অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে রক্ষার জন্য সহকারী কমিশনার (ভুমি)কে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে উপজেলার সরকারী সম্পতি দখলকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানিয়েছেন।


    প্রকাশিত: বুধবার, ১০ জুন, ২০২০

    Post Top Ad