Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    চীনে করোনায় মৃতের সংখ্যা বাড়ছে দিন দিন


    চীনের হুবেই প্রদেশ থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা প্রতিদিন বেড়েই চলেছে। গতকাল শনিবার একদিনে এ ভাইরাসে আরও ৯৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে হুবেই প্রদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ২ হাজার ৩৪৬ জন। আর বিশ্বব্যাপী এই ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৪৫৮ জনে।

    gifs website

    হুবেই স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শনিবার আরও নতুন করে ৬৩০ জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে প্রদেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৪ হাজার ৮৪ জনে।

    এ ছাড়া করোনাভাইরাস আক্রান্ত ৪০ হাজার ১২৭ জন রোগী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, যাদের মধ্যে ১ হাজার ৮৪৫ জনের অবস্থা আশঙ্কজনক। আর ১৫ হাজার ২৯৯ জন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

    মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, চীনের মূল ভূখণ্ডে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ২ হাজার ৪৪১ জন। চীনের মূল ভূখণ্ডের বাইরে ১৭ জনসহ মোট মৃতের সংখ্যা ২ হাজার ৪৫৮ জন। এর মধ্যে ইরানে পাঁচজন, জাপানে তিনজন এবং হংকং, ইতালি ও দক্ষিণ কোরিয়ায় দুজনের মৃত্যু হয়েছে।

    এ ছাড়া তাইওয়ান, ফিলিপাইন ও ফ্রান্সে একজন করে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। চীনের মূল ভূখণ্ডসহ বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭৮ হাজার ৫৭২ জনে।

    চীনের পর প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে এখন সবচেয়ে বেশি আতঙ্কে দক্ষিণ কোরিয়া।দক্ষিণ কোরিয়ায় দু'দিনেই করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চার গুণ হয়েছে। এক দিনেই নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ২২৯ জন। এখন পর্যন্ত দক্ষিণ কোরিয়ায় ৪৩৩ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিত করেছে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ।শুক্রবার সরকার শিনচিওঞ্জি ধর্মীয় গোষ্ঠীর নয় হাজারেরও বেশি সদস্যকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ঘরের মধ্যে থাকার নির্দেশ দিয়েছে।

    প্রসঙ্গত, গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের মধ্যাঞ্চলীয় হুবেই প্রদেশে প্রথমবারের মতো করোনাভাইরাসে সংক্রমণ ধরা পড়ে।চীনের মূল ভূখে র বাইরে আক্রান্তের সংখ্যা এত দিন ছিল তুলনামূলক কম। অবশ্য চীনের প্রতিটি প্রদেশেই এ রোগের সন্ধান মিলেছে। মহামারির আশঙ্কায় বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ ইতিমধ্যেই চীনের সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রেখেছে। মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত হওয়া এ ভাইরাস ঠেকাতে চীন-ভ্রমণে কড়াকড়ি আরোপ করেছে বেশ কয়েকটি দেশ।


    প্রকাশিত: রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

    Post Top Ad