• সর্বশেষ আপডেট

    ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দফায় দফায় সংঘর্ষ, আহত ১৫

     


    ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কালাসীমা গ্রামে দুদল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে ১৫ জন আহত হয়েছে। এসময় বেশ কয়েকটি ঘরবাড়ি ভাংচুর করা হয়। একই মামলার তদন্তের জন্য শনিবার গোয়েন্দা পুলিশ ওই এলাকায় যাওয়ার পর এই সংঘর্ষ শুরু হয়। এরপর রোববার সকাল ও দুপুরেও সংঘর্ষ হয়েছে। 


    এ ঘটনায় আহতদের মধ্যে ১২ জন জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। ঘটনায় জড়িত ৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ।


    পুলিশ জানায়, শনিবার গোয়েন্দা পুলিশ একটি মামলার তদন্তে ওই গ্রামে গেলে মামলার এজাহারে উল্লেখিত স্বাক্ষীদের বাইরে কিছু লোক ঘটনার বিষয়ে স্বাক্ষী দেয়। এ নিয়ে গ্রামের খানবাড়ি ও সিরাজ আলী বাড়ির গোষ্ঠীর লোকজন প্রতিপক্ষের দোলা বাড়ির গোষ্ঠীর লোকজনের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সাবেক ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যানরা দুই পক্ষে মদদ দিচ্ছেন।


    আহতদের মধ্যে মামুন (৩৮), সম্রাট (১৬), মনির (৪০), রামিম (২০), সাকিব (২০), বাছির মিয়া (৫১), সোহেল (৪০), তাজিম (১০), সাগর (২৪), আশিক (৩২), রোকসানা (৫০) ও আলম (৩৪) ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।


    সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। এই ঘটনায় আটজনকে আটক করা হয়েছে।


    প্রকাশিত শনিবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩