• সর্বশেষ আপডেট

    মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে আরও ১৮ মামলা

     

    শ্রমিকদের পাওনা টাকা পরিশোধ না করায় আরও ১৮টি মামলা হয়েছে নোবেল বিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে। আজ সোমবার ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতে গ্রামীণ টেলিকমের ১৮ জন শ্রমিক বাদী হয়ে ভিন্ন ভিন্নভাবে মামলাগুলো করেন। 

    শ্রম আদালতের চেয়ারম্যান (জেলা ও দায়রা জজ) বেগম শেখ মেরিনা সুলতানা মামলাগুলো গ্রহণ করে আগামী ১৫ ও ১৬ অক্টোবর ড. ইউনূসকে হাজির হয়ে অথবা আইনজীবীর মাধ্যমে জবাব দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. নুরুজ্জামান আজকের পত্রিকাকে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

    ড. ইউনূসের আইনজীবী ব্যারিস্টার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘কয়েকজন শ্রমিক মামলা করেছেন বলে শুনেছি। তবে কয়টা মামলা হয়েছে, সেটা সঠিক জানা যায়নি। আদালতের সমন পেলে বলা যাবে।’ 

    আদালত সূত্রে জানা গেছে, মোট ২১ কোটি ৪১ লাখ ১৭ হাজার ১৬৩ টাকা পাওনা পরিশোধ না করায় শ্রম আইন ২০০৬-এর ২১৩ ধারা লঙ্ঘিত হওয়ায় এই মামলাগুলো করেন বাদীরা। গ্রামীণ টেলিকমের সাবেক ১৭ জন ও বর্তমান একজন কর্মচারী এই মালাগুলোর বাদী।

    জানা যায়, কোম্পানির নিয়ম অনুযায়ী লভ্যাংশের ৫ শতাংশ হারে পাওনা বুঝিয়ে না দেওয়ায় এই মামলাগুলো করা হয়। 

    উল্লেখ্য, এর আগে শ্রম আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে ২০২১ সালের ৯ সেপ্টেম্বর ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করে ঢাকার কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান অধিদপ্তর। ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতে এ মামলা করেছিলেন কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান অধিদপ্তরের শ্রম পরিদর্শক আরিফুজ্জামান। ওই মামলাটি বিচারাধীন।
    প্রকাশিত সোমবার ২৮ আগস্ট ২০২৩