• সর্বশেষ আপডেট

    চট্টগ্রামে হঠাৎ বেড়েছে চোখ ওঠা রোগ, বেশি আক্রান্ত স্কুল ছাত্র ছাত্রীরা

     

    হঠাৎ করে নগরে বাড়ছে চোখ ওঠা রোগীর সংখ্যা। চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চক্ষু বিভাগেও দেখা গেছে রোগীদের ভিড়।

    এ রোগে আক্রান্ত হয়েও অনেক শিক্ষার্থীকে স্কুলে যেতে দেখা গেছে।
    মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) সকাল থেকে নগরের বিভিন্ন স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের এ রোগে আক্রান্ত হয়ে স্কুল যেতে দেখা গেছে। এ ছাড়া হাসপাতালেও বেড়েছে এ রোগীর সংখ্যা।  

    চিকিৎসকরা বলছেন, গরমে আর বর্ষায় চোখ ওঠার প্রকোপ বাড়ে। একে বলা হয় কনজাংটিভাইটিস বা চোখের আবরণ কনজাংটিভার প্রদাহ। সমস্যাটি চোখ ওঠা নামেই পরিচিত। রোগটি ছোঁয়াচে। ফলে দ্রুত অন্যদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। কনজাংটিভাইটিসের লক্ষণ হলো চোখের নিচের অংশ লাল হয়ে যাওয়া, চোখে ব্যথা, খচখচ করা বা অস্বস্তি। প্রথমে এক চোখ আক্রান্ত হয়, তারপর অন্য চোখে ছড়িয়ে পড়ে। এ রোগে চোখ থেকে পানি পড়তে থাকে। চোখের নিচের অংশ ফুলে ও লাল হয়ে যায়। চোখ জ্বলে ও চুলকাতে থাকে। আলোয় চোখে আরও অস্বস্তি হয়।

    কনজাংটিভাইটিস রোগটি আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শ থেকে ছড়ায়। রোগীর ব্যবহার্য রুমাল, তোয়ালে, বালিশ অন্যরা ব্যবহার করলে এতে আক্রান্ত হয়। এ ছাড়া কনজাংটিভাইটিসের জন্য দায়ী ভাইরাস বাতাসের মাধ্যমেও ছড়ায়। আক্রান্ত ব্যক্তির আশপাশে যারা থাকে, তারাও এ রোগে আক্রান্ত হয়।
     
    আলকরণ নুর আহমদ সিটি করপোরেশন উচ্চ বিদ্যালয়, চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, বাগমনিরাম আবদুর রশিদ সিটি করপোরেশন বালক উচ্চ বিদ্যালয়, সিটি করপোরেশন মিউনিসিপ্যাল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, সরকারি মুসলিম হাই স্কুল, বাকলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল, নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়, বাংলাদেশ মহিলা সমিতি বালিকা বিদ্যালয়, চট্টগ্রাম সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষার্থী এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে।  
    প্রকাশিত মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad