• সর্বশেষ আপডেট

    স্বাধীনতা বিরোধীরা দেশে অস্তিরতা সৃষ্টি করতে চাই:ভূমিমন্ত্রী

                       






     

                                      ছবি: দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের শোক সভায় বক্তব্য রাখছেন ভূমিমন্ত্রী

    ‘ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি বলেছেন, ‘যারা বঙ্গবন্ধুকে

    হত্যা করেছে তারাই স্বাধীনতা বিরোধী, তারা কখনো এদেশের উন্নয়ন চাইনি।

    উন্নয়ন, স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় জীবন বাজি রেখে কাজ করছে বঙ্গবন্ধু

    কন্যা শেখ হাসিনা। যেই বাংলাদেশকে একটি তলা বিহীন ঝুঁড়ি বলত সেই

    বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশে পরিনত হয়েছে।

     

    বিগত ১৩ বছরে দেশ এগিয়েছে অনেক। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নের মাধ্যমে এই

    দেশ শীঘ্রই উন্নত দেশের তালিকায় যুক্ত হবে। কিন্তু নির্বাচন আসলেই স্বাধীনতা

    বিরোধীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে আরেকটি ১৫ আগস্টের স্বপ্ন দেখে। তারা সারাদেশে

    অস্তিরতা সৃষ্টির চেষ্ঠা করছে। তাদের এই স্বপ্ন কখনো বাস্তবায়ন হবেনা। মনে

    রাখবেন যতদিন শেখ হাসিনার হাতে দেশ, ততদিন পথহারাবেনা বাংলাদেশ।

    শনিবার চট্টগ্রাম নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে দক্ষিণ জেলা

    স্বেচ্ছাসেবকলীগের জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির

    বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

     

    ভূমিমন্ত্রী আরো বলেন, বিদেশের মাটিতে বসে সংখ্যালঘুদের উসকানি দিচ্ছে।

    আমি কিছুদিন আগে পুলিশের একটি অনুষ্ঠানে ৭৫ পরবর্তী বিষয় নিয়ে বক্তব্য

    রেখেছি তারা সেটা ভিন্ন ভাবে প্রচার করেছে। তা কখনও কাম্য নই। আমরা এদেশের

    স্বাধীনতাকে পরাজিত হতে দেবনা। ইনশাল্লাহ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ

    এগিয়ে যাচ্ছে এগিয়ে যাবে।

     

    দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোহাম্মদ জোবায়েরের সভাপতিত্বে ও

    সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মোহাম্মদ গালিব সাদলীর সঞ্চালনা অনুষ্ঠানে বিশেষ

    অতিথি আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার

    বিপ্লব বড়ুয়া তার বক্তব্যে বলেন, ‘১৫ আগস্ট স্বাধীনতা বিরোধীরা দেশে অরাজকতা

    সৃষ্টি করতে চাই, আমরা আগস্টের শোককে শক্তিতে পরিনত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ

    হাসিনা সারা দেশে যে উন্নয়নের কর্মযজ্ঞ শুরু করেছে সেই উন্নয়নের

    অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিয়ে যাব।’

     

    অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন, দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ

    সম্পাদক মফিজুর রহমান, অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ

    আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রেীয় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গাজী মেজবাউল

    হোসেন সাচ্চু।

     

    অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম

    আফজালুর রহমান, বিশেষ অতিথি কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সভাপতি মো.

    ফারুক আমজাদ খান, ড. জমির উদ্দিন সিকদার, যুগ্ম সম্পাদক এ.কে. এম.

    আজিম, সাংগঠনিক সম্পাদক নাফিউল করিম নাফা, পাঠ ও বস্ত্র বিষয়ক সম্পাদক

    আশিষ কুমার সিংহ, পানি সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক রাহুল বড়ুয়া, উপর প্রতিবদ্বী

    বিষয়ক সম্পাদক ডা. উম্মে সালমা মুনমুন, উপ পাঠ ও বস্ত্র বিষয়ক সম্পাদক তারেক

    মাহমুদ চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ কুমার

    দাশ, মোসলেম উদ্দিন মনচুর, দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের।

     

    এসময় উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী

    ফরিদ উদ্দিন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু সুফিয়ান, সাতকানিয়া উপজেলা

    আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান সিআইপি আবদুল মোতালেব,

    কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক চৌধুরী,

    আনোয়ারা উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের

    সভাপতি অধ্যাপক এম.এ মান্নান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এমএ মালেক,

    কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী রনি, জেলা

    স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সভাপতি এম.এ হাসেম, সেলিম বশর, নুরুল আবছার

    তালুকদার, অহিদুল ইসলাম রহমানী, মো. ইউসুফ, আবু বক্কর, হারুনুর রশিদ

    চৌধুরী, আবদুল মালেক খান, সোহেল মোহাম্মদ মনজুর, মোহাম্মদ আাউতাউল

    করিম, এইচএম করিম উদ্দিন, এড, আবুল ফয়েজ চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক জাফর

    ইকবাল তালুকদার, এড. রোকনুজ্জামান মুন্না, ইঞ্জিনিয়ার সনাতন চক্রবর্তী

    বিজয় প্রমূখ।

    প্রকাশিত শনিবার ২৭ আগস্ট ২০২২

    x

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad