• সর্বশেষ আপডেট

    বাংলাদেশ মুনাফাখোরদের স্বর্গরাজ্যঃ মির্জা ফকরুল

      


    নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম হু হু করে বাড়ছে উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, মানুষের এখন ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা। চাল, ডাল, তেল, লবণের দাম নাগালের বাইরে চলে গেছে।আজকে পেয়াজের দাম ১০ টাকা করে বেড়েছে। অর্থাৎ এটা মুনাফাখোরদের একটা স্বর্গরাজ্য হয়েছে।এটা কালোবাজারি লুটেরাদের স্বর্গরাজ্য হয়েছে।শুক্রবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।বিএনপির এই নেতা বলেন, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সাহেব বলেন না? বাংলাদেশ এখন একটা পুরোপুরি মাফিয়াদের দেশে পরিণত হয়েছে। এরা গায়ের জোর খাটাবে।সম্পদ লুটে নেবে।নির্বাচন কমিশন নিয়ে সরকার অস্থির হয়ে গেছে মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, কমিশন গঠনের জন্য আইন করেছে। এখন সার্চ কমিটি করেছে। কাদের নিয়ে সার্চ কমিটি করা হয়েছে, আমরা জানি।

    আমি আগেও বলেছি, যাকে প্রধান করা হয়েছে তিনি বিচারক। ১৯৭০ সালের নির্বাচনে তার বাবা ছিলেন আওয়ামী লীগের এমপি। তিনি নিজে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছিলেন। তার ছোট ভাই বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিবের দায়িত্ব পালন করছেন। তাহলে নিরপেক্ষ হলো কী করে? ছহুল হোসাইন সাহেবও আওয়ামী লীগের নমিনেশন চেয়েছিলেন। যারা সার্চ করবে তারাই তো নিরপেক্ষ নয়। এটাকে জায়েজ করার জন্য সুধী সমাজের লোকদের ডাকা হয়েছে।দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-সহকারী পরিচালক শরীফ উদ্দিনকে চট্টগ্রাম থেকে পটুয়াখালীতে বদলির পর চাকরিচ্যুত করার ঘটনাকে ‘বেআইনি’ বলেও দাবি করেন মির্জা ফখরুল।
    তিনি বলেন, ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের দুর্নীতির জন্য বাংলাদেশ আজ শ্মশানে পরিণত হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রীর দুর্নীতি বের হলো, বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর দুর্নীতির খবর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশ হলো। তার কোনো তদন্ত নেই। এদিকে, বেআইনিভাবে দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক শরিফ উদ্দিনকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।
    বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, এখন তাদের সময় শেষ হয়ে এসেছে, এজন্য একটু বেশি হয়রানি শুরু করেছে। কিন্তু তাদের শেষ রক্ষা হবে না। যারা জুলুম করে অন্যায় অত্যাচার করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়, চুরি করে লুট করে দেশের সম্পদ বিদেশে পাচার করে টিকে থাকতে চায়, তারা কখনও চিরদিন ক্ষমতায় থাকতে পারে না। অতীতেও পারেনি এখনো পারবে না।
    আয়োজক সংগঠনের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে এবং সদস্যসচিব মুজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, তাঁতী দলের উপদেষ্টা হুমায়ুন ইসলাম খান, ডেমোক্রেটিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন মনি, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সহসভাপতি রাশেদুল হক প্রমুখ বক্তব্য দেন।


    প্রকাশিত: শুক্রবার  ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad