Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    গুগলে চাকরি পেলেন চট্টগ্রামের মেয়ে শাম্মী

      


    বাংলাদেশের নারীদের জন্য অনুপ্রেরণার এক নাম তিনি। বর্তমানে টেক জায়ান্ট গুগলের প্রোডাক্ট ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছেন।

     আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি জগতে বাংলাদেশের প্রতিনিধি। বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশিপ সেন্টারের সহপ্রতিষ্ঠাতাও। গুগলে প্রথমে তিনি কাস্টমার ইনসাইটস ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ পান। এরপর পেমেন্ট প্লাটফর্ম টিমে প্রডাক্ট ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ পান। বলছি চট্টগ্রামে বেড়ে উঠা বাংলাদেশের নারী শাম্মী কুদ্দুসের কথা।

    জানা যায়, শাম্মী কুদ্দুসের মা বাবা দুজনেই ছিলেন অধ্যাপক। উভয়ের কাছ থেকেই পড়াশুনার বিষয়ে প্রেরণা পেয়েছেন। মা ছিলেন পদার্থ বিজ্ঞানের অধ্যাপক। মায়ের কাছ থেকে বিজ্ঞান নিয়ে পড়াশনার প্রতি আগ্রহটা পেয়েছেন। স্যাট পরীক্ষায় ভালো করার কারণে এমআইটি থেকে স্কলারশিপ পান। এমআইটি থেকে পরিবেশ প্রকৌশল বিষয়ে বিএসসি ডিগ্রি অর্জন করেন। স্টানফোর্ড জিএসবি এবং হাভার্ড কেনেডি স্কুল থেকে যথাক্রমে এমবিএ এবং এমপিএইড ডিগ্রি লাভ করেছেন।

    গুগলের মনেটাইজেশন প্রক্রিয়া নিয়ে কাজ করে থাকে পেমেন্ট প্লাটফর্ম টিম। এই টিমের মাধ্যমেই কাস্টমারের কাছে গুগলের সব ধরনের আর্থিক লেনদেন হয়ে থাকে। সারা বিশ্বে গুগলের প্রডাক্ট– ইউটিউব, ম্যাপস, অ্যাডস, প্লে স্টোর, অ্যাডসেন্স প্রভৃতির ব্যবহার নিশ্চিত করার কাজ করে থাকে এই প্রডাক্ট টিম। নিজে যেহেতু ফিন্যানশিয়াল টেকনোলজি বিষয়ে খুব আগ্রহী, তাই এই টিমের সাথে কাজ করাটা দারুণ উপভোগ করেছেন শাম্মী। গুগলে ফিন্যানশিয়াল টেকনোলজি নিয়ে তাঁর কাজ বেশ প্রশংসিত হয়েছে।

    ২০১১ সালে দেশে ফিরে স্বামী ইজাজ আহমেদের সঙ্গে প্রতিষ্ঠা করেন বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশিপ সেন্টার। এই সেন্টার তরুণদের শিক্ষাক্ষেত্রে নানারকম সহযোগিতা করে থাকে। শাম্মী কুদ্দুস ব্যক্তিগত জীবনে দুই সন্তানের মা। বর্তমানে স্বামীর সঙ্গে ক্যালিফোর্নিয়ার সানিভেলে থাকেন। সেখানেই তিনি টেক জায়ান্ট গুগলের প্রোডাক্ট ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছেন।

    প্রকাশিত: মঙ্গলবার ২১ ডিসেম্বর ২০২১

    Post Top Ad

    Post Bottom Ad