Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    আওয়ামীলীগের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ!

    মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম, গাজীপুরঃ- গাজীপুর মহানগরে আওয়ামীলীগের ঘোষিত ওয়ার্ড আহবায়ক কমিটি নিয়ে চরম বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

    দীর্ঘ দিনের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতারা বাদ পরায় টানা দুইদিন যাবৎ নেতাকর্মীদের প্রতিবাদ, বিক্ষোভ মিছিল ও মহাসড়ক অবরোধ করে।

    ২২ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) বিকালে ৫৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ও অংগসংগঠনের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও মহাসড়ক অবরোধ করে ঘোষিত পকেট কমিটি বাতিলের দাবি জানিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। 
    এ নিয়ে দলের অভ্যন্তরে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে।

    বিকেল চারটা থেকেই টঙ্গীর বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে খন্ড খন্ড বিক্ষোভ মিছিল চেরাগআলী মার্কেট এলাকায় এসে জড়ো হয়। পাঁচটার দিকে নেতাকর্মীরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অবস্থান নেয়। তারা পৌনে একঘন্টা ব্যাপী মহাসড়ক অবরোধের কারণে সড়কের উভয় পাশে দীর্ঘ যানজট লেগে যায়। এতে দুর্ভোগে পড়েন পথচারি ও পরিবহণ যাত্রীরা। 

    পরে স্থানীয় প্রশাসন ও দলের স্থানীয় শীর্ষ নেতাদের অনুরোধে অবরোধ প্রত্যাহার করেন পদ বঞ্চিত বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মী ও তাদের সমর্থকরা।

    আন্দোলনরত নেতাকর্মীরা জানান, গত রোববার গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আওয়ামীলীগের অ্যাডভোকেট আজমত উল্লা খান ও সাধারণ সম্পাদক গাজীপুর সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলম ৩৮টি (১৯-৫৭) ওয়ার্ডে একযোগে আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করেন। তারা দাবি করেন ঘোষিত ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটিতে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপি’র অনুসারী, ত্যাগী, পরিশ্রমী, প্রকৃত আওয়ামী যোদ্ধাদের না রেখে একতরফা, মনগড়া ও ব্যক্তিগত পকেট কমিটি করা হয়েছে। আওয়ামীলীগের একতরফা এ পকেট কমিটি ঘোষণার জেরেই আমাদের এ কর্মসূচী। এ কমিটি বাতিলের আগ পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। 

    মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি জানান, সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও দপ্তর সম্পাদক ছাড়া এসব কমিটির ব্যাপারে কেউ অবগত ছিলেন না। কমিটি গঠনের আগে কারওর মত বা পরামর্শ নেওয়া হয়নি। এক তরফা কমিটি গঠন করা হয়েছে।

    এ ব্যাপারে সিটি মেয়র ও মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, যাচাই বাছাই করে আহবায়ক কমিটি করা হয়েছে। কোন ত্রুটি থাকলে দলের কেন্দ্রিয় নেতৃবৃন্দ রয়েছেন, তারা বিষয়টি দেখবেন।

    এ ব্যাপারে মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক টঙ্গী পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট মোঃ আজমত উল্লা খানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সকলের মতামত ও পরামর্শ নিয়েই  কমিটি ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। কাউকে অবগত করা হয়নি এমন অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

    আন্দোলনের ব্যাপারে তিনি বলেন, যারা বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করেছেন তারা দুই-একজন ছাড়া বাকিরা আওয়ামীরীগের কেউ নন। 

    কেউ অবমূল্যায়ন বা পদ বঞ্চিত হয়ে থাকলে আওয়ামীলীগের সংশ্লিষ্ট নেতাকর্মীরাই আন্দোলন করার কথা। কিন্তু অল্প বয়সী এরা কারা? এদের কারা, কী উদ্দেশ্যে মাঠে নামিয়েছেন তা বুঝার ব্যাপার।

    প্রকাশিত: বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

    Post Top Ad