Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    রাজারহাটে সিঙ্গারডাবরী হাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টির জমি প্রভাবশালীদের দখলে

    মাসুদ রানা, রাজারহাট-কুড়িগ্রামঃ- রাজারহাটের একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমি ব্যবসায়িরা দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ দখলে রাখায় শিক্ষা কার্যক্রম ব্যহত হচ্ছে।

    জানা গেছে, উপজেলার ঘড়িযালডাঁঙ্গা ইউনিয়নের সিঙ্গারডাবরীহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ১৯২৪ ইং সনে প্রতিষ্ঠিত হয়। এলাকার আসাদুল হক জানান, আমার দাদা মৃত ধনমামুদের দানকৃত ৭০ শতক এবং এলাকার মৃত আফান উল্লাহর দেয়া ২২ শতক মোট ৯২ শতক জমির উপর সিঙ্গারডাবরীহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি স্থাপিত।

    এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীর অভিভাবকগণ অভিযোগ করেন, বিদ্যালয়টি স্থাপনের সময় পুরো ৯২ শতক জমিই বিদ্যালয়ের দখলে থাকলেও ধীরে ধীরে বিদ্যালয়টির পূর্ব দিকে উত্তর-দক্ষিণাংশের প্রায় ২০শতক জমি বেদখল হয়ে যায়। বিদ্যালয়টি সিঙ্গারডাবরীহাট বাজার সংলগ্ন হওয়ার সুবাদে বর্তমানে ১৮/২০জন ব্যবসায়ী স্থাপনা গড়ে তুলে বিদ্যালয়ের জমিতে ব্যবসা-বাণিজ্য করছেন।

    ফলে বিদ্যালয়ের মাঠ সংকুচিত হওয়ায় শিক্ষার্থীদের চলাফেরা ও চিত্তবিনোদন বন্ধের উপক্রম হয়েছে। ভেঁঙ্গে পড়েছে বিদ্যালয়ের প্রাশসনিক কাঠামো। ব্যহত হচ্ছে শিক্ষা কার্যক্রম।

    অবৈধ দখলদার ব্যবসায়ি সিন্ধু রায় বলেন,আগে এই জায়গা ব্যবহারের জন্য সিঙ্গারডাবরীহাট দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয় ভাড়া আদায় করতো। ১০/১২ বছর পূর্বে প্রাথমিক বিদ্যালয় জমি জরিপের পর এই দোকান গুলোর জায়গা তাদের বলে নিশ্চিত করার পর অনেকদিন প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির লোকজন বিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানের জন্য টাকা নিত। কয়েক বছর ধরে দিতে হচ্ছে না। একই কথা বলেন, অন্য দখলদারাও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব উমর আলী জানান, যারা অবৈধ ভাবে বিদ্যালয়ের জমি দখল করে আছেন,তাদের কাছ থেকে কোন দোকান ভাড়া নেয়া হয় না।

    উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ছোলায়মান মিঞা বলেন, বিদ্যালয়টির সীমানা নিধার্রনের জন্য সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবর চিঠি ইস্যু করা হয়েছে।

    প্রকাশিত: মঙ্গলবার ০৮, সেপ্টেম্বার ২০২০

    Post Top Ad