Header Ads

parkview
  • সর্বশেষ আপডেট

    ঈদুল আযহা'র সময় বন্ধ থাকবে মসজিদুল হারাম।

    মোহাম্মদ  ফারুক, সৌদি আরবঃ- মহামারী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ঈদুল আযহা'র সময়ে মসজিদুল হারাম অর্থাৎ কাবা শরীফ দুই দিনের জন্য বন্ধ রাখা হবে।

    বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাব ঠেকাতে এবং হাজীদের যাতায়াত নিবিগ্ন করতে এ বছর ঈদুল আযহা'র সময়ে কাবা শরীফ, মসজিদুল হারাম দুই দিন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

    সৌদি আরবের উমরাহ ও হজ্জের নিরাপত্তা বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আল আহম্মাদী। 

    জেনারেল মোহাম্মদ আহম্মাদী জানান করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এবং হাজীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবছর ঈদুল আযহা' এবং আরাফাতের দিন পবিত্র কাবা শরীফ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সৌদি আরবের পবিত্র দুই মসজিদের অভিবাবক সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ এবং দেশটির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান।

    তিনি আরও বলেন এ-ই দুই দিন কাবা শরীফে কোন নামাজ হবে না । হাজীরা যাতে নিবিগ্নে কাবা শরীফ তাওয়াফ করতে পারেন সেজন্য   নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এবং সাফা মারওয়া ছাহিহ করার জন্য শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখতে নিদিষ্টভাবে চিহ্ন দেওয়া হয়েছে।

    তিনি আরও বলেন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ যাতে না ছড়াতে পারে সেজন্য এ বছর সীমিত আকারে হজ্জ পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
    সৌদি আরবের অভ্যন্তরে অবস্থান করা বিভিন্ন দেশের নাগরিক ও সৌদি নাগরিক এ-র সমন্বয়ে ১০ হাজার হাজীকে নিয়ে পালিত হচ্ছে এবারের হজ্জ
    তাই হাজীদের নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্যবিধি খেয়াল রাখা আমদের দায়িত্ব।

    তিনি এ দুইদিন  মক্কার মানুষকে ঘরে নামাজ আদায় করার নির্দেশনা দিয়েছেন এবং ঘরে বসেই আরাফার রোযা রাখার অনুরোধ করেছেন।
    তিনি আরও বলেন এ-ই দুই দিন মক্কার নিরাপত্তা ব্যবস্থা আগের মতই চলমান থাকবে। 

    মোট কথা, হাজী এবং সৌদি আরবে অবস্থানরত সকল প্রবাসী ও সৌদি নাগরিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা চিন্তা করেই কতৃপক্ষ এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

    সূত্রঃ আরব নিউজ।     


    প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার ২৩ জুলাই, ২০২০

    Post Top Ad